The Rain and Other Poems: Shankha Ghosh

sankha_ghoshShankha Ghosh (born 6 February 1932) is a Bengali poet and critic, born in Chandpur of present day Bangladesh. He is a leading authority on Rabindranath Tagore. Other than that, he’s also one of the most prolific writers in Bengali. Apart from teaching at many institutes, he joined the Iowa Writer’s Workshop in the 1960s. Some of the significant awards that he received are: Sahitya Akademi Award (1977, for Baabarer praarthanaa), Rabindra-Puraskar (1989, for Dhum legechhe hrit kamale); Saraswati Samman for his anthology Gandharba Kabitaguccha;Sahitya Akademi Award for translation (1999, for translation of raktakalyaan); Desikottam by Visva-Bharati (1999);  and, Hall of Fame Lifetime Achievement “Sahityabrahma” Award by the World Forum for Journalists and Writers (WFJW) (2015).


বৃষ্টি

আমার দুঃখের দিন তথাগত

আমার সুখের দিন ভাসমান

এমন বৃষ্টির দিন পথে পথে

আমার মৃত্যুর দিন মনে পড়ে

আমার সুখের মাঠ জল ভরা

আমার দুঃখের ধান ভরে যায়

এমন বৃষ্টির দিন মনে পড়ে

আমার জন্মের কোনও শেষ নেই

The Rain

Tranquil is the day of my grief

Afloat is the day of my bliss

In such a rain and drenched in my way

I remember the day of my death.

 

Again waters the pasture of bliss

It fills with the crop of my grief

It recalls such a day and recalls in the rains

No end there is of my Birth.


শুন্যের ভিতরে এত ঢেউ

বলিনি কখনো?
আমি তো ভেবেছি বলা হয়ে গেছে কবে।
এভাবে নিথর এসে দাঁড়ানো তোমার সামনে
সেই এক বলা
কেননা নীরব এই শরীরের চেয়ে আরো বড়ো
কোনো ভাষা নেই
কেননা শরীর তার দেহহীন উত্থানে জেগে
যতদূর মুছে নিতে জানে
দীর্ঘ চরাচর
তার চেয়ে আর কোনো দীর্ঘতর যবনিকা নেই।
কেননা পড়ন্ত ফুল, চিতার রুপালি ছাই, ধাবমান শেষ ট্রাম
সকলেই চেয়েছে আশ্রয়
সেকথা বলিনি? তবে কী ভাবে তাকাল এতদিন
জলের কিনারে নিচু জবা?
শুন্যতাই জানো শুধু? শুন্যের ভিতরে এত ঢেউ আছে
সেকথা জানো না 

 

Such Ripples in the void

Didn’t I say?

Thought, I had said it so long before.

Such in silence ,when I stand in front of you,

It’s a saying.

Since no word speaks larger than my

Quite body,

Since, a body rises beyond its flesh & blood

And wipes the Universe in such an expanse,

There is no larger end.

Since the falling flower, silver ashes of pyre, the running last Tram car,

All asked for a shelter.

Didn’t I say so? Then how a Rose stares so long,

Looms low near the pond waters?

Did you know only a void?

So many ripples are there in a void,

You hardly know.


ত্রিতাল

তোমার কোনো ধর্ম নেই, শুধু
শিকড় দিয়ে আঁকড়ে ধরা ছাড়া
তোমার কোনো ধর্ম নেই, শুধু
বুকে কুঠার সইতে পারা ছাড়া
পাতালমুখ হঠাত্ খুলে গেলে
দুধারে হাত ছড়িয়ে দেওয়া ছাড়া
তোমার কোনো ধর্ম নেই, এই
শূন্যতাকে ভরিয়ে দেওয়া ছাড়া।

শ্মশান থেকে শ্মশানে দেয় ছুঁড়ে
তোমারই ঐ টুকরো-করা-শরীর
দু:সময়ে তখন তুমি জানো
হলকা নয়, জীবন বোনে জরি।
তোমার কোনো ধর্ম নেই তখন
প্রহরজোড়া ত্রিতাল শুধু গাঁথা-
মদ খেয়ে তো মাতাল হত সবাই
কবিই শুধু নিজের জোরে মাতাল !

The drums

No faith, no character you have

But to hold so tight with the roots.

No faith, no character you have

But to endure the hits in your heart.

When opens the door of the hell,

No way but to spread your hands

No faith,no character you have

But to fill this void to the brink.

 

They throw from grave to the graves

The carcass of yours in pieces

you know in the days so grave,

The life is a lace , not a blaze.

Then you have no character ,no faith

Only fill the hours with the drums

They knew to be drunk by the wine

Only a poet is drunk by his own.


 

শরীর দিয়েছ শুধু, বর্মখানি ভুলে গেছ দিতে

‘ও যখন প্রতিরাত্রে মুখে নিয়ে এক লক্ষ ক্ষত
আমার ঘরের দরজা খোলা পেয়ে ফিরে আসে ঘরে
দাঁড়ায় দুয়ারপ্রান্তে সমস্ত বিশ্বের স্তব্ধতায়
শরীর বাঁকিয়ে ধরে দিগন্তের থেকে শীর্ষাকাশ
আর মুখে জ্বলে থাকে লক্ষ লক্ষ তারার দাহন
অবলম্বহীন ঐ গরিমার থেকে ঝুঁকে পড়ে
মনে হয় এই বুঝি ধর্মাধর্মজ্ঞানহেন দেহ
মুহূর্তে মূর্ছিত হল আমার পায়ের তীর্থতলে-
শূন্য থেকে শূন্যতায় নিরাকার অস্ফূট নিশ্বাস
মধ্যযামিনীর স্পন্দে শব্দহীন হল, তখনও সে
দূর দেশে দূর কালে দূর পৃথিবীকে ডেকে বলে :
এত যদি ব্যূহ চক্র তীর তীরন্দাজ, তবে কেন
শরীর দিয়েছ শুধু, বর্মখানি ভুলে গেছ দিতে !”

Given a body, forgot to give a shield

And when he comes with millions of sores in his face

See my open door and returns home, to his room

Stands at the door end, in the silence of the world

Bends his body from horizon to the sky above , at large

Glows his face with millions of   stars burning in blaze

From that glory he bends, without support,

It seems that his carcass, devoid of a light of religion,

Faints just  under my auspicious feet,

A fade and shapeless breath runs from void to void,

Be soundless in the midnight pulsation, but yet

He calls distant space and time, distant world and asks :

While there are so much of death plots, weapons and archers

Then why did you give only a body, forgot to give a shield!


চুপ কর,শব্দহীন হও 

এত বেশি কথা বলো কেন? চুপ করো
শব্দহীন হও
শষ্পমূলে ঘিরে রাখো আদরের সম্পূর্ণ মর্মর

লেখো আয়ু লেখো আয়ু

ভেঙে পড়ে ঝাউ, বালির উত্থান, ওড়ে ঝড়
তোমার চোখের নিচে আমার চোখের চরাচর
ওঠে জেগে

স্রোতের ভিতরে ঘূর্ণি, ঘূর্ণির ভিতরে স্তব্ধ
আয়ু
লেখো আয়ু লেখো আয়ু
চুপ করো, শব্দহীন হও 

 

Be quite, be speechless

Why do you speak so much?

Please be quiet and speechless.

Do cover the murmur of your care

With roots & flowers.

 

Do write your life, do write lifelines.

 

Break down the casuarinas, rise sand dunes & rise storms

The world of my eyes awakes beneath your eyes.

 

There’s a vortex deep inside the stream & sits a silent lifeline

In the vortex.

 

Do write your life, do write lifelines,

Be quite & be speechless.


বৃষ্টি হয়েছিল পথে সেদিন অনন্ত মধ্যরাতে

বৃষ্টি হয়েছিল পথে সেদিন অনন্ত মধ্যরাতে
বাসা ভেঙে গিয়েছিল, গাছগুলি পেয়েছিল হাওয়া
সুপুরিডানার শীর্ষে রূপোলি জলের প্রভা ছিল

আর ছিল অন্ধকারে – হদৃয়রহিত অন্ধকারে
মাটিতে শোয়ানো নৌকো, বৃষ্টি জমে ছিল তার বুকে
ভেজা বাকলের শ্বাস শূন্যের ভিতরে স্তব্ধ ছিল

মাটি ও আকাশ শুধু সেতু হয়ে বেঁধেছিল ধারা
জীবনমৃত্যুর ঠিক মাঝখানে বায়বীয় জাল
কাঁপিয়ে নামিয়েছিল অতীত, অভাব, অবসাদ

পাথরপ্রতিমা তাই পাথরে রেখেছে সাদা মুখ
আর তার চারধারে ঝরে পড়ে বৃষ্টি অবিরল
বৃষ্টি নয়, বিন্দুগুলি শেফালি টগর গন্ধরাজ

মুছে নিতে চায় তার জীবনের শেষ অপমান
বাসাহীন শরীরের উড়ে যাওয়া ম্লান ইশারাতে
বৃষ্টি হয়েছিল বুকে সেদিন অনন্ত মধ্যরাতে 

Then it rained, in the endless midnight

Then it rained in the way, in the endless midnight.

Demolished the home & the trees got the winds.

The betel wings got a glow from the silver of water drops.

 

And there was in the dark, in the dark seat of your heart,

A boat being laid on the shore, rain waters being stuck in its chest,

Calm was the breath in the emptiness of the wet barks.

 

The ground and the sky, bridged together, called rains,

Formed illusive webs just between life and death,

Had shaken and called the past, the misery & the fatigues.

 

A stone-face thus had kept its white face on the stones,

And it rained and rained around it, ceaseless,

Not the rains but the drops of flowers- Sefali, Tagar and Gondhoraj

 

It wanted to soak the last insult of life,

In the faded hints of the wings of our body,

Then it rained in the heart, in the endless midnight.


বাবরের প্রার্থনা

এই তো জানু পেতে বসেছি, পশ্চিম
আজ বসন্তের শূণ্য হাত –
ধ্বংস করে দাও আমাকে যদি চাও
আমার সন্ততি স্বপ্নে থাক।

কোথায় গেল ওর স্বচ্ছ যৌবন
কোথায় কুরে খায় গোপন ক্ষয়।
চোখের সমুখে এই সমূহ পরাভব
বিষায় ফুসফুস ধমনী শিরা।

জাগাও শহরের প্রান্তে প্রান্তরে
ধূসর শূণ্যের আজান গান;
পাথর করে দাও আমাকে নিশ্চল
আমার সন্ততি স্বপ্নে থাক।

না কি এ শরীরের পাপের বীজানুতে
কোনই ত্রাণ নেই ভবিষ্যের?
আমারই বর্বর জয়ের উল্লাসে index
মৃত্যু ডেকে আনি নিজের ঘরে?

না কি এ প্রাসাদের আলোর ঝলসানি
পুড়িয়ে দেয় সব হৃদয় হাড়
এবং শরীরের ভিতরে বাসা গড়ে
লক্ষ নির্বোধ পতঙ্গের ?

আমারই হাতে এত দিয়েছ সম্ভার
জীর্ণ করে ওকে কোথায় নেবে?
ধ্বংস করে দাও আমাকে ঈশ্বর
আমার সন্ততি স্বপ্নে থাক।

 

Babar’s Pray

And thus I sit here, knees down,facing west,

Empty is the springs open hands.

Demolish me please dear, if you so want, but

Let my son stay and be, in his dreams.

 

Where is vanished his youth, slender,

Where does erode his hidden sore!

All these defeats just in front of our eyes,

Poisons my lung and bloods in my vein.

 

Do awake in the field, in City & its end

An evening prayer of  void & grey

Make me a stone please, so motionless, but

Let my son stay and be, in his dreams.

 

Or if, in my sins, that virus of my blood,

No rescue there is ,no respite of future!

In all my cruel win, and in these mighty cheers

Did I summon death, called him in my home?

 

Or, whether this palace, and its lights & gloss

Burns them all there just, all hearts & all bones

And nesting in its flesh, nesting in its blood

Millions of those insects, fools, and fools…

 

So much is given to me, so much of wealth, but

Why make him decrepit such, where would you take him to?

Demolish me O my God, demolish me please, but

Let my son stay and be, in his dreams.


মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে

একলা হয়ে দাঁড়িয়ে আছি

তোমার জন্যে গলির কোণে
ভাবি আমার মুখ দেখাব
মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে।

একটা দুটো সহজ কথা
বলব ভাবি চোখের আড়ে
জৌলুশে তা ঝলসে ওঠে
বিজ্ঞাপনে, রংবাহারে।

কে কাকে ঠিক কেমন দেখে
বুঝতে পারা শক্ত খুবই
হা রে আমার বাড়িয়ে বলা
হা রে আমার জন্ম ভূমি।

বিকিয়ে গেছে চোখের চাওয়া

তোমার সাথে ওতপ্রত
নিয়ন আলোয় পণ্য হলো
যা কিছু আজ ব্যাক্তিগত।

মুখের কথা একলা হয়ে
রইলো পড়ে গলির কোণে
ক্লান্ত আমার মুখোশ শুধু
ঝুলতে থাকে বিজ্ঞাপনে। 

 

The Poster covers my face

Stand me there, all alone

For you in the narrow lane

When I think to show my face

It covers with a poster then.

 

Simple words, just one or two

I would share and spell in eyes

Then it glows in the gloss

In the pomp and showbiz.

 

Hard to know or make out

How do a man, you perceive

And Alas , my hyperboles

My Salute to you, O native.

 

My glances‘re all sold,

Did vanish with you

My privates are all out

Under neon & its glow.

 

My words stand alone

At the corner of the street

Hangs tired is my mask

In a promo and a spree.


ভয়

ভয়? কেন ভয়? আমি খুব 
শান্ত হয়ে চলে যেতে পারি। 
তুমি বলো ভয়। দেখো চেয়ে 
অতিকায় আমার না-এর 
চৌকাঠে ছড়িয়ে আছে হাত- 
যে হাতে সমুদ্র, ঘন বন, 
জ্যোতির্বলয়ের ঘেরাটোপে 
শ্বাপদসুন্দর শ্যামলতা 
রক্তপাত, জীবনযাপন। 
প্রাগৈতিহাসিক ডাইনোসর 
স্মৃতি শুধু, ইতিহাস আছে- 
তুমি আর আমি শান্ত তার 
প্রবাহদুয়ার রাখি খুলে। 
তার মাঝখানে যদি পেশি 
একবারও কেঁপে ওঠে, সে কি 
ভয়? ভয় নয়। ভয় শুধু 
শূন্যতাও যদি মুছে যায়- 
শুধু এই প্রতিধ্বনিহীন 
অস্তুতি’র ঘট ভেঙে গিয়ে 
কোথাও না থাকে যদি না 
তার পায়ে উঠে আসে ভয় 
শূন্যতাবিহীন শূন্যতায়। 

The fear

Fear? Why a fear?

I can go away quitely.

You say, it’s a fear.

But see, how the hands of my

Big ‘NO’ is lying at a threshold.

The hand, which holds an Ocean,

Dense woods, amongst the solar orbits,

Beautiful and beasty greens,

Bloodshed & the living.

Jurassic Dinosaurs are only memories,

But history is there, and

You and I keep open

Its streams and quiet doors.

In between, if muscles tremble,

Even just for once, is it fear?

It s not fear.

The fear only is for,

If it wipes even a vacuum!

If it breaks the pot, a pot which holds

Not a praise& not echoes,

And if there is no trace of a‘No’,

Then a fear crawls up its feet,

In a void without emptiness.


পুনর্বাসন

যা কিছু আমার চার পাশে ছিল
ঘাসপাথর
সরীসৃপ
ভাঙা মন্দির
যা কিছু আমার চার পাশে ছিল
নির্বাসন
কথামালা
একলা সূর্যাস্ত
যা কিছু আমার চার পাশে ছিল
ধ্বংস
তীরবল্লম
ভিটেমাটি
সমস্ত একসঙ্গে কেঁপে ওঠে পশ্চিম মুখে
স্মৃতি যেন দীর্ঘযাত্রী দলদঙ্গল
ভাঙা বাক্স প’ড়ে থাকে আমগাছের ছায়ায়
এক পা ছেড়ে অন্য পায়ে হঠাত সব বাস্তুহীন |

যা কিছু আমার চার পাশে আছে—
শেয়ালদা
ভরদুপুর
উলকি-দেয়াল
যা কিছু আমার চার পাশে আছে—
কানাগলি
স্লোগান
মনুমেন্ট
যা কিছু আমার চার পাশে আছে—
শরশয্যা
ল্যাম্প পোস্ট
লাল গঙ্গা
সমস্ত এক সঙ্গে ঘিরে ধরে মজ্জার অন্ধকার
তার মধ্যে দাঁড়িয়ে বাজে জলতরঙ্গ
চূড়োয় শূণ্য তুলে ধরে হাওড়া ব্রিজ
পায়ের নিচে গড়িয়ে যায় আবহমান |

যা কিছু আমার চার পাশে ঝর্না
উড়ন্ত চুল
উদোম পথ
ঝোড়ো মশাল
যা কিছু আমার চার পাশে স্বচ্ছ
ভোরের শব্ দ
স্নাত শরীর
শ্মশান শিব
যা কিছু আমার চার পাশে মৃত্যু
একেক দিন
হাজার দিন
জন্ম দিন
সমস্ত একসঙ্গে ঘুরে আসে স্মৃতির হাতে
অল্প আলোয় বসে থাকা পথ ভিখারি
যা ছিল আর যা আছে দুই পাথর ঠুকে
জ্বালিয়ে নেয় এতদিনের পুনর্বাসন |

Rehabilitation

Whatever I had around me,

Grass-stones

Reptiles

Broken temples

Whatever I had around me,

Banishment

Folk tales

A lonely sunset

Whatever I had around me,

Destruction

Arrows , spears

Homestead

 

Those all tremble together in the west

As if memory is a long passenger’s cluster.

Broken boxes lie in the shadow of a mango Tree,

Leaving a foot, another one suddenly is in exile.

Whatever I have around me,

A railway terminal,

A scorching noon

Graffiti

Whatever I have around me

Blind lanes

Slogan

Monument

Whatever I have around me

Bed of thorn

Light Post

Red Ganges

All of them surround my dark marrows

The metals of a xylophone play amongst it,

The Howrah Bridge lifts emptiness at its peak

And, eternity flows under its feet.

 

Whatever I have around me, a fountain

Flying hair

Naked Highway

A stormy torch

Whatever I have around me, transparent

Sound of the dawn

Bathing body

Meditative graves

Whatever I have around me, death

A day

Thousand days

Birthday

All returns together in the hands of memories

A street beggar sitting in low light

Whatever there was & whatever there is,

Rap each other like fire stones

And light up my so long rehabilitation.

About author

Partha Pratim Ghosh
Partha Pratim Ghosh 3 posts

Parthapratim Ghosh is an engineer by profession. He is also a literary and film critic. He regularly writes for reputed English and Bengali magazines and dailies.

You might also like

Why Not A full Fledged One

I begin to offload. Not mere  clothes but  more . . . those  thoughts  hanging  about heavily. Stubbornly unmoving, intruding even now whilst I  am  trying to  cover this nakedness.

Revisiting Ritwik Kumar: Parthapratim Ghosh

“I & my Pen are same”. This line used to be synonymous with Ritwik Kumar Ghatak during his life time. Its the same line, we hear from Nilkantho Bagchi, the

MILANO-VIGEVANO-?

We know where we’re born, we can imagine where we will live and we don’t know where we will die. Well, I would say that I am surely in the

Every day is Sunday: A Reading of The Sense of An Ending

“Every day is Sunday”…… as Tony wanted it to be. Once you open the book and start reading the novel, you will find the first line written, “I remember in

My Elder Brother & Other poems

An important Bengali poet of 80’s, Dhiman Chakraborty was born and brought up in Kolkata. The first edited magazine by Chakraborty was ‘Aalaap’ (Introduction / Conversation). In the year of

Historical memory and modern Greek literature : the case of Elias Venezis

The Syrian civil war and refugee wave are among the most dramatic events in recent years. Most of us have read or watched the news on the disastrous situation of

The Things That are Left & Other Poems

This Side, Alone The tune makes a suspect Whether it is ghostly enough The household mimics I set the debate on a tree-top   It gets fruitful Hey… Who else

‘Majjhim Pantha’ by Roshnara Mishra – A Review by Anirban Bhattacharya

…..and the search continues. A poet, bewildered, observes the very similitude of every tedium of life, whispering “ekta rasta/hothat-i arekta rastar moto’’ (a street, all on a sudden, seems like

The Tree: Ritwik Ghatak

Once, a banyan tree had leaned over a tiny river flowing through some distance away from a village. As a tree, there was nothing special about it. The tree was

Resignation & Other Poems: Ángel Guinda

Ángel Guinda (Zaragoza, 1948) received the Premio de las Letras Argonesas in 2010. He is the author of poetry books Vida ávida, La llegada del mal tiempo, Biografia de la

Sonauncle’s Home

A cycle was approaching on this late autumn afternoon. – Jugalchandra was sitting on the top tube with his legs dangling, the thin wind touching his eyebrows, hairs protruding from

La Revolution

The Yanks kill and me I read Mao Mao The jester is king and me I sing Mao Mao The bombs go off and me I scoff Mao Mao Girls

The Mask & Other Poems : Nand Kishore Acharya

The Flute: The Peacock’s Feather ‘Hope you do not mind If I refuse to be Your flute any longer Not that I feel neglected – Rather I was well-placed On

Gaajan -A Hindu Folk Festival: Biswarup Saha

Gaajan is a Hindu festival associated with deities Shiva, Neel and Dharmathakur. Gajan spans around a week, starting at the last week of Choitro continuing till the end of the

Wind-script, Trigger Happy & Other Poems

1. Walk into the eerie; and sense who drills thy tomb with the wind-stone. 2. The propeller turns as a maze. On whose flesh that maroon nightgown murmurs? Oh human-toy!

Dreaming of Freedom: Palestinian Child Prisoners Speak: Yousef M. Aljamal

Shadi Farrah was just 12 years old when he was arrested in November 2015 with his friend Ahmad alZataari. They were held for over a year until January 2017 when

O Tempora! & Other Poems: Amit Chakravarty

Inside The Eyes of a Fortune-teller Inside the eyes of a fortune-teller lied a rural road. Then the evening was softly descending on the village. Vincent left painted cornfields on

Diaspora, Critical Theories, and Death of Language: Ahmed Shams’ analysis

Avik Gangopadhyay has both critical and creative writings to his credit published in esteemed journals and leading newspapers. A post-Graduate in English Language and Literature from Jadavpur University, Kolkata. He

Sun and Light in Odysseas Elytis’ poetry

Odysseas Elytis was born in 1911 on the island of Crete and was a descendant of a family coming from Lesbos island. When his insular conscience met surrealism, the result

Jaywalking at Kolkata: Subho Maitra

# Dwindling between Tagore and Kerouac I discovered my city, zaniest credo of being took me to the Old Park Street Cemetery. I couldn’t find a single bone that carried

0 Comments

No Comments Yet!

You can be first to comment this post!

Leave a Reply